itemtype="http://schema.org/WebSite" itemscope> ভাতঘুম, দুপুরে ভাত খাওয়ার পর ঘুমানো কি ঠিক? | Power Nap - Today's News & Information

ভাতঘুম, দুপুরে ভাত খাওয়ার পর ঘুমানো কি ঠিক? | Power nap

 ভাতঘুম, দুপুরে ভাত খাওয়ার পর ঘুমানো কি ঠিক? Power nap:– আজকে আমরা আলোচনা করবো ভাত-ঘুমকে পৃথিবীর অন্যান্য দেশে কি বলে, দুপুরে ভাত খাওয়ার কতক্ষন ঘুমানো উচিত, দুপুরে ভাত খাওয়ার পর ঘুমানোর কিছু কৌশ।

আমাদের এই বাংলাদেশ অনেকেই দুপুরে খাওয়ার পর কিছুটা ঘুমিয়ে নেন যাকে বাংলায় বলা হয় ভাতঘুম। দুপুরে খাওয়ার পর ঘুমানো কে যদিও অনেক সময় আলসেমি মনে করা হয় কিন্তু 15 থেকে 20 মিনিটের ভাতঘুমের অনেক উপকারিতা রয়েছে। ( ভাতঘুম, দুপুরে ভাত খাওয়ার পর ঘুমানো কি ঠিক? | Power nap)

 সব বয়সের মানুষের জন্যই ভাতঘুম উপকারী নতুন এক গবেষণা বলছে যে এটি হয়তো আপনাকে আরো বেশিদিন বাঁচতে সাহায্য করতে পারেন।

ভাত-ঘুমকে পৃথিবীর অন্যান্য দেশে কি বলে?

https://todaybdonlinenews.com/
ভাতঘুম, দুপুরে ভাত খাওয়ার পর ঘুমানো কি ঠিক?

ভাতঘুম, দুপুরে ভাত খাওয়ার পর ঘুমানো নাকি বাঙালির বদঅভ্যাস কিন্তু এর সংস্কৃতি রয়েছে বিশ্বের অনেক দেশেই ইউরোপের অনেক ভাষায় ভাত-ঘুমকে বলা হয় সিয়েস্তা। আর ইংরেজিতে বলা হয় পাওয়ার ন্যাপ (Power nap)। ইউরোপের যে দেশগুলোতে খানিকটা গরম আবহাওয়া রয়েছে যেমন গ্ৰীছ এবং স্পেনে সিয়েস্তা নামে পরিচিত ভাত-ঘুম সেখানকার মানুষের জীবনের খুবই গুরুত্বপূর্ণ অংশ। 

বলা হয় দুপুর দুইটার পর এই দেশগুলো নাকি ঝিমিয়ে পড়ে। ইউরোপের কিছু শহরে এমন কি সেখানকার মানুষের ভাত খেয়ে ঘুমানোর আইনি অধিকার রয়েছে। দিনভর নানা কাজের চাপ এর মাঝে কম্পিউটার রিফ্রেশ বাটন এর মত কাজ করে ভাতঘুম। দুপুরের পর দিনের বাকি সময়টুকু সতেজ বোধ করা এবং মন-মেজাজ ভালো রাখতে ভাতঘুম বেশ ভালই কাজে আসে।

https://todaybdonlinenews.com/
ভাতঘুম, দুপুরে ভাত খাওয়ার পর ঘুমানো কি ঠিক?

 যে ধরনের কর্মশক্তি নিয়ে দিন শুরু হয় সেটি দিন গড়ানোর সাথে সাথে কমে আসতে শুরু করে। (Power nap) বা ভাত-ঘুম শরীরের কর্মশক্তি পুনরুদ্ধারে সহায়তা করে।

বলছেন লন্ডনের ঘুম বিষয়ক একটি প্রতিষ্ঠান The sleep স্কুলের প্রতিষ্ঠাতাদের একজন বিশেষজ্ঞ গাই মেডোজ। গাই মেডোজ বলছেন যখন আমরা ভাত-ঘুম বা Power nap নেই তখন এডেনোসিন নামে একটি রাসায়নিকের ব্যবহার কমে আসে এটি সংরক্ষিত হয়।যার কারণে কর্মশক্তি বৃদ্ধি পায় এবং আমরা সতেজ অনুভব করি মেজাজ ভালো বোধ করি।

এর ফলে বিকেলের দিকে কাজে মনোযোগ বেশি দেয়া সম্ভব হয় কাজে ভুল করার সম্ভাবনাও কমে যায়। তার মতে ভাত-ঘুমের সময়কাল হওয়া উচিত 1৫ থেকে 20 মিনিট। ভাত-ঘুম উচ্চ রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে। তারমানে হৃদপিণ্ড এবং কিডনির স্বাস্থ্য ভালো রাখে। আর শরীরের এই যন্ত্র গুলো যখন ভালো থাকবে তখন শরীরের আরো অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ সুস্থ থাকবে।

https://todaybdonlinenews.com/
ভাতঘুম, দুপুরে ভাত খাওয়ার পর ঘুমানো কি ঠিক?

দুপুরে ভাত খাওয়ার কতক্ষন ঘুমানো উচিত?

ঘুম বিষয়ক গবেষক এবং টেইক এ ন্যাপ চেঞ্জ ইয়োর লাইফ। নামে বইয়ের লেখক সারা মেটারনিক বলছেন ভাত-ঘুম সবচেয়ে বেশি কাজ করে যদি এর সময়কাল 60 থেকে 90 মিনিট হয়। যদি আমরা মস্তিষ্কের স্মরণশক্তি, সৃজনশীলতা, কোন কিছু বোঝার ক্ষমতা বাড়াতে চাই তাহলে 90 মিনিট পর্যন্ত ন্যাপ দরকার হয়। মানের উপরে প্রভাব ফেলে ঘুম মন ভালো রাখার জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ।

ঢাকার মনোরোগ বিশেষজ্ঞ ডক্টর ইশরাত শারমিন রহমান বলেছেন। শরীরে মন ভালো রাখার যে হরমোন গুলো রয়েছে। ঘুম সেগুলোর ভারসাম্য তৈরি করে। বেশি সময় জেগে থাকলে সেই ভারসাম্য নষ্ট হয় ঘুমালে হরমোনের ভারসাম্য রক্ষা হয় চাপ সৃষ্টিকারী হরমোনকম ক্ষরণ হয়। মস্তিষ্ক বিশ্রাম পায় তাদের মনের চাপ উদ্বেগ দূর হয় মুড ভালো থাকে চিন্তাধারার প্রক্রিয়া ভালো কাজ করে।

https://todaybdonlinenews.com/
ভাতঘুম, দুপুরে ভাত খাওয়ার পর ঘুমানো কি ঠিক?
ভাতঘুম, দুপুরে ভাত খাওয়ার পর ঘুমানো কি ঠিক?

দিনের মাঝামাঝি সময়ে যেহেতু 90 মিনিটের ভাতঘুম দেয়া মুশকিল তাই 15 থেকে 20 মিনিট কে ভাতঘুমের জন্য আদর্শ মনে করা হয়। ডক্টর মেডোজ বলছেন ন্যাপ হচ্ছে সাঁতার কাটা বা বাইসাইকেল চালানোর মতো অনুশীলনের মাধ্যমে শরীরকে ভাতঘুমে অভ্যস্ত করে তোলা যায়। যদি ভাত ঘুম দিতে চান তাহলে শুরুতেই ঘড়িতে অ্যালার্ম দিয়ে নিন যাতে কাজের মধ্যে বেশিক্ষণ ঘুমিয়ে থাকেন।

প্রতিদিন সময় না বদলে ঠিক একই সময় ঘুমানোর চেষ্টা করুন। এতে করে শরীরে ঘুমের অভ্যস্থতা তৈরি হবে এবং ওই সময় এলেই শরীর ঘুমাতে চাইবে। শরীরের এই অভ্যস্ততা তৈরি করতে বা শরীরে ভাতঘুমের ঘড়ি তৈরি করতে তিন মাসের মত সময় লাগতে। পারে বলছিলেন ডক্টর মেডোজ।

দুপুরে ভাত খাওয়ার পর ঘুমানোর কিছু কৌশল

যেভাবে খুব ভালো মানের ভাতঘুম নিতে পারেন সে নিয়ে ডক্টর ইশরাত শারমিন রহমান কিছু পরামর্শ দিয়েছেন। ভাতঘুম নিতে চাইলে দিনের এই সময় আসার আগে চা কফি নেয়া যাবেনা। সময়ের মিনিট পাঁচেএক আগে কাজ বন্ধ করুন।

https://todaybdonlinenews.com/
ভাতঘুম, দুপুরে ভাত খাওয়ার পর ঘুমানো কি ঠিক?

উদ্দীপনা তৈরী করে এমন কিছু থেকে সরে আসুন।মোবাইল ফোন ল্যাপটপের স্ক্রিন থেকে চোখ সরিয়ে নিন। বেশি গরম বা বেশি ঠাণ্ডা নয়। স্বাচ্ছন্দ বোধ হয় এমন কোন জায়গায় চেয়ার বা সোফায় আরাম করে বসুন। বাসায় থাকলে বিছানায় শুয়ে পড়ুন ঘরের আলো কমিয়ে দিন শব্দের উৎস নিয়ন্ত্রণ করুন। একটু খানি পানি পানি খেয়ে নিন। যদি চোখ ঢাকার মতো কিছু থাকে সেটি দিয়ে চোখ ঢাকুন, স্থির, থাকুন, দীর্ঘ নিঃশ্বাস নিন। সোজা কথায় শরীর এবং মনকে শিথিল করুন চোখ বন্ধ করে মন থেকে নিতিবাচক উদ্বেগ সৃষ্টি করে এমন চিন্তা ঝেড়ে ফেলুন।

ডক্টর ইশরাত শারমিন বলছেন বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এতে ঘুম আসে তবে সবার ক্ষেত্রে সব সময় এটি কাজে নাও লাগতে পারে। ২০থেকে ৯০ মিনিটের বেশি সময় ধরে ভাতঘুম নেয়া যাবেনা। ডক্টর ইসরাত শারমিন বলছেন যাদের রাতে ঘুমের সমস্যা রয়েছে তাদের ভাতঘুম নেয়া উচিত নয়। ঘুম হবে কিনা সে নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়া যাবে না সেটা ঘুম না আসার একটি বড় কারণ। যারা রাতে ভালো ঘুমিয়েছেন বা ঘুমাতে পারেননি তাদের সবার ক্ষেত্রেই ভাতঘুম কাজে দেয়। ডক্টর শারমিন বলছেন অনেক সময় ঘুমাতে না পারলেও কুড়ি মিনিটের মত শুধু চোখ বন্ধ করে থাকলেও ক্লান্তি দূর হয়।

FAQ’s

দুপুরে ঘুমালে কি মোটা হয়?

যদি দুপুরে ভাত খেয়েই ঘুমিয়ে পরেন তাহলে শরীরের মেদ বেড়ে যেতে পারে।  ভালহয় যদি একটু হাটতে পারেন। আর যদি আপনার সময় কম থাকে 15 থেকে 20 মিনিটের একটি ঘুম আপনার বেশ উপকারেই আসবে।

দুপুরে খাওয়ার পর কি করা উচিত?

দুপুরে খাওয়ার পর করা উচিত সবার আগে শুক্রিয়া আদায় করা।  তারপর আপনি যদি একটু ভারী হয়ে থাকেন তাহলে আপনার কিছুক্ষণ হাটা উচিত 

ভাতঘুম in English কি?

ভাতঘুম in English:  ভাত-ঘুমকে বলা হয় সিয়েস্তা। আর ইংরেজিতে বলা হয় পাওয়ার ন্যাপ (Power nap)। ইউরোপের যে দেশগুলোতে খানিকটা গরম আবহাওয়া রয়েছে যেমন গ্ৰীছ এবং স্পেনে সিয়েস্তা নামে পরিচিত ভাত-ঘুম সেখানকার মানুষের জীবনের খুবই গুরুত্বপূর্ণ অংশ। 

Read more –

References

20 minute power nap, power nap time, 10 minute nap, 20 minute nap, 15 minute power nap, 26 minute nap, best length of time for a power nap, ideal length of power nap, best length of power nap, a good nap, power nap app,

x
x